এই গরমেও নিজেকে সুন্দর রাখুন

এখনকার সময়টা হলো একদিকে যেমন চৈত্রের দাবদাহ গরম অন্যদিকে তেমনি বৈশাখী বাতাসের ছোয়া। আবার নতুন বছরে প্রিয়জনের চোখে নিজেকে নতুন করে উপস্থাপন করার সময়ও এখন। ভালোবাসার মানুষটি কাছে ডেকে বলছেন-‘আজ তোমাকে অন্য রকম লাগছে’ শুনতে ভালো লাগে আমাদের সবারই। সবকিছু মিলিয়ে এই সময়টাতে রূপ ও স্বাস্থ্যের দিকে একটু বেশিই খেয়াল রাখতে হয়। তবে নানা চেষ্টা করেও নিজেকে আকর্ষণীয় করা যায় না, আগ্রহ ফেরানো যায় না প্রিয়জনের। ভাববেন না-এবারের আয়োজনে গ্রীষ্মটাকে মাথায় রেখেই আপনার রূপচর্চা নিয়ে বলেছেন আমাদের লাইফ স্টাইল বিভাগের নিয়মিত রূপচর্চা বিষয়ক উপদেষ্টা জেরিন ফারজানা ।
# এই আবহাওয়ায় শরীরে ঘাম হয় অতিরিক্ত মাত্রায়। ঘাম মানেই ভ্যাপসা দূর্গন্ধ। ঘামের দূগর্ন্ধ থেকে বাঁচতে গোসলের আগে পানিতে অল্প পরিমাণ ওডিকোলান মিশিয়ে নিন। ফলে ঘামের দূগর্ন্ধ থেকে রেহাই পাবেন। আর নিজেকে সতেজ মনে হবে।
# গরমকালে ময়েশ্চরেচারের দরকার নেই এটা অনেকেই মনে করেন। কিন্তু মনে রাখবেন ফেইশ ওয়াশ যেমন ত্বককে পরিস্কার করে তেমনি ফেইশ ওয়াসের পর দরকার ময়েশ্চরেচারের তা সে শুষ্ক কিংবা তৈলাক্ত ত্বক যাই হোক না কেন। ময়েশ্চারেচার না পেলে ত্বক শুকিয়ে যাবে এবং ত্বকে ছোট ছোট লাল ফুসকুড়ি দেখা দিবে। যাকে আমরা অনেকেই ব্রণ ভেবে থাকি। এই ফুসকুড়ি থেকে বাঁচার জন্য ফেইশ ওয়াশের পর অবশ্যই ময়েশ্চারেচর ব্যবহার করুন।
# ব্রণ এবং ফুসকুড়ির মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। ত্বকের গায়ে যদি বড় বড় ফোলা ফোলা গোটার মত দেখা দেয় এবং ব্যাথা হয় তবে ওটা ব্রণ। ত্বকে যদি ব্রণ দেখা দেয় তাহলে এন্টিমাইক্রোবাইয়াল বা ওয়েল ফ্রি ফেইশ ওয়াশ এবং নিম ও লবঙ্গ সমৃদ্ধ টোনার ব্যবহার করলে ভালো ফল পাওয়া যায়।
# যদি ছোট ছোট লাল ফুসকুড়ি দেখা দেয়া এবং চুলকায় তাহলে বুঝতে হবে অতিরিক্ত শুষ্কতার ফলে এই ফুসুকড়ি দেখা দিয়েছে। এই অবস্থায় ত্বকে পর্যাপ্ত পরিমান ময়েশ্চারেচার ব্যবহার করুন। ময়েশ্চারেচর ব্যবহারের ফলে সাময়িকভাবে দুই একটি ব্রণ দেখা দিতে পারে তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ত্বক স্বাভাবিক কিংবা নরম হয়ে আসে।
# এই ঋতুতে যেহেতু শরীরে অতিরিক্ত ঘাম হয় তাই খাবারের ক্ষেত্রেও খেয়াল রাখা উচিত। এই সময় ফল যেমন তরমুজ কাঁচা আম এই ফলগুলো রূপ এবং স্বাস্থ্য দুটোর জন্যই উপকারী। গরমের প্রার্দুভাব থেকে বাঁচতে পর্যাপ্ত পরিমান স্যালাইন এবং পানি পান করুন। মনে রাখবেন শুধু সুন্দর নয় সুস্থও থাকুন। এবং রূপচর্চা সাথে স্বাস্থ্য চর্চাও করুন।

Post a Comment

0 Comments